1. poroshbangla@gmail.com : admin :
  2. info@sonalibanglatv.com : sonalibanglatv :
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০২:০৭ অপরাহ্ন

যশোর জেলার বিভিন্ন জায়গায় হঠাৎ ইট ভাটার উচ্ছেদ অভিযান হওয়াই হতাশ হয়ে পড়েছে শার্শার ভাটার মালিক, শ্রমিকরা।

নাসিম আক্তার, শার্শা (যশোর) প্রতিনিধি
  • Update Time : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০

ভাটার মালিকবৃন্দ গন বলেন এই মুহুর্তে সরকার যদি ইট ভাটা উচ্ছেদ করে তাহলে কয়েক লাখ লোক কর্মহীন হয়ে পড়বে। দেশে চুরি, ছিনতাই,ডাকাতি বেড়ে যাবে। অনেক পরিবার কে না খেয়ে চলতে হবে।
বিশেষ করে এই মুহুর্তে যদি ইট ভাটা উচ্ছেদ করে তাহলে তাহলে অনেক ভাটার মালিক নিঃস্ব হয়ে যাবে, তাদের পথে বসা ছাড়া কোন উপায় থাকবে না। কারন অনেক ভাটা তৈরি হয়েছে ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে, এই অবস্থায় সরকার যদি ইট ভাটা উচ্ছেদ করে তাহলে তাদের পক্ষে লোন পরিশোধ করা সম্ভব হবে না।
সরকারের সকল প্রকার নিয়ম মানা হলেও ইট ভাটা কেন অবৈধ হচ্ছে? যশোরের বিভিন্ন জায়গায় ইট ভাটা উচ্ছেদ হয়েছে ফলে বেকার হয়ে পড়েছে শত-শত পরিবার।
এদিকে বিভিন্ন ইট ভাটা বন্ধ হওয়াতেই ইটের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে, এতে করে সংকটে পড়বে নির্মান ও আবাসনশিল্প।
এ অবস্থায় এ শিল্পকে টিকিয়ে রাখতে অনুরোধ করেছেন সাধারন জনগন।
এ বিষয়ে শার্শা ইটভাটা মালিক আনারুল ইসলাম সোনালী বাংলা টেলিভিশন কে বলেন একটি জিকজ্যাক ভাটা স্থাপনে খরচ হয় সোয়া এক কোটি থেকে দেড় বা দুই কোটি পর্যন্ত। সরকারের ভ্যাট অনুযায়ী প্রত্যেক ভাটাকে বছরে সব মিলিয়ে ৮/১০ লক্ষ সরকার কে দিতে হয়।
আমরা সরকারি নিয়ম মেনে কোটি টাকা বিনিয়োগ করে পরিবেশবান্ধব ভাটা তৈরি করেছি। কিন্তু সরকারের হঠাৎ এই পদক্ষেপ নেয়া আমাদের চরম বিপর্যয়ের মুখে ঠেলে দিয়েছে। সারা বিশ্বের ন্যায় করোনার যে মহামরী না কাটাতে আরেক মহামারী মধ্যে পড়ে গেছি।
সরকারের কাছে ভাটার লাইসেন্স আবেদন করলেও মেলে না কোন লাইসেন্স । আমরা সকল প্রকার নিয়ম মেনে ভাটা চালায়।
আমি সরকারের কাছে সকল ভাটা মালিকদের পক্ষে অনুরোধ জানাচ্ছি সরকার যেন আমাদের বিপর্যয়ের মুখে না ফেলে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
© All rights reserved Sonali Bangla Tv 2020 - 2021
Develper By : Porosh Network Ltd